Walton Primo D9 স্মার্টফোনটির ফুল হ্যান্ডস অন রিভিউ

Linux Host Lab Ads

মাত্র ২৯৩০ টাকায় অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন এনেছে ওয়ালটন।  ব্যাপারটা অনেক ভালো যে মাত্র ৩০০০ টাকার কম মূল্যেও একটি ফোন পাওয়া যাচ্ছে, সেটিও আবার অ্যান্ড্রয়েড।  একদম লো বাজেট রেঞ্জে এবার ওয়ালটন তাদের প্রিমো সিরিজের নতুন এই স্মার্টফোনটি নিয়ে এসেছে, এর নাম ওয়ালটন প্রিমো ডি৯।  আমরা এখন এই স্মার্টফোনটির বিস্তারিত সম্পর্কে জানব; যদিও দাম হিসেবে এর স্পেসিফিকেশন’কে খারাপ বলা যাবে না।  তবে নিশ্চয়ই অন্যসব স্মার্টফোন এর মত এটি সেরকম হেভি ইউজ এর জন্য ব্যবহার করা যাবে না।  আমরা যদি বয়সে বড় কারো জন্য স্মার্টফোন কিনতে চাই, যিনি হয়ত সাধারন মৌলিক ইন্টারনেট সার্ফিং, ইউটিউবে ভিডিও ব্রাউজিং করতে চান, জার জন্য দরকার একটি অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন; তাদের জন্য এই ওয়ালটন প্রিমো ডি৯ কেনা যাবে।

একনজরে ওয়ালটন প্রিমো ডি৯

  • অ্যান্ড্রয়েড অরিও ৮.১ গো এডিশন
  • ৫১২ এমবি র‍্যাম, ৮ জিবি রম
  • ১.৩ গিগাহার্জ কোয়াড কোর সিপিইউ
  • মালি টি-৮২০ জিপিইউ
  • ১৪০০ এমএএইচ ব্যাটারি
  • ২৯৩০ টাকা

বক্সে যা যা পাওয়া যাবে

  • প্রিমো ডি৯ ডিভাইসটি
  • চার্জার এডাপ্টার
  • (২.০) ইউএসবি কেবল
  • ইয়ারফোন
  • ডিসপ্লেতে যুক্ত প্রটেকশন গ্লাস
  • ওয়ারেন্টি কার্ড
  • সেফটি ইন্সট্রাকশন

কালার

স্মার্টফোনটি বাজারে পাওয়া যাবে দুইটি আকর্ষণীয় কালারে।  আর এগুলো হল লাল এবং কালো। তো দারুন এই দুইটি কালারের মধ্যে যে কালারটি আপনার ব্যক্তিত্তের সাথে মানায়, আপনি নির্দ্বিধায় সেটি পছন্দ করে নিতে পারেন।

Linux Host Lab Offer

ডিসপ্লে

ডিসপ্লেটিতে পাওয়া যাবে ৮০০*৪৮০ পিক্সেল রেজুলেশন এর ৪” ইঞ্চি ডাব্লিউ-ভিজিএ ডিসপ্লে; যেখানে ভিউইং অ্যাঙ্গেল একটু নেগেটিভ মনে হতে পারে।

ডিজাইন

ডিভাইসটির ডিজাইনে পাওয়া যাবে নতুনত্ব, সম্পূর্ণ বডি জুড়ে একটা কার্ভি তথা বাঁকানো ফিনিস আনা হয়েছে; যা একে এই ছোটো ডিভাইসটিকে করেছে অনেক আকর্ষণীয় এবং কমপ্যাক্ট।  ডিভাইসটি অনেক পাতলা কেননা এর ১৪০০ এমএএইচ ব্যাটারি এর সাথে এর ওজন মাত্র ১১৫ গ্রাম।

হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার

স্পেসিফিকেশন এর দিক দিয়ে এই ডিভাইসটি একদম সিম্পল বলা চলে।  এতে পাওয়া যাবে একটি ১.৩ গিগাহার্জ কোয়াড কোর সিপিইউ, মালি টি-৮২০ জিপিইউ।  সিস্টেমকে ব্যাকআপ দিবে ৫১২ এমবি র‍্যাম এবং ৮ জিবি রম।  মাত্র ২৯৩০ টাকার এই বাজেট ফোনেও পাওয়া যাবে অ্যান্ড্রয়েড অরিও ৮.১ গো এডিশন।

বেঞ্চমার্ক

ক্যামেরা

ডিভাইসটি ক্যামেরার দিক দিয়ে বলতে গেলে একদম ভালনা; আসলে এই দামে এতো বেশি কিছু আশা করাও ঠিক না।  এর রিয়ার প্যানেলে থাকছে একটি ২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সাথে ফ্ল্যাশ এবং এর ফ্রন্ট প্যানেলে থাকছে একটি ০.৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।

ক্যামেরা ইউআই

নোটিফিকেশন লাইট

ডিভাইসটির ফ্রন্ট প্যানেলে উপরে একটি লাল রঙ এর নোটিফিকেশন এলইডি পাওয়া যাবে।

এই ছিল স্মার্টফোনটি সম্পর্কে কিছু তথ্য; আসলে বাজেট ডিভাইস তাই বেশি কিছু ফিচার এতে হয়ত পাওয়া যাবে না।  তবে এই দামে যা পাওয়া যাচ্ছে তা কিন্তু কম নয়।  আর এই স্মার্টফোন কাদের জন্য কেনা শ্রেয় তা উপরে আলোচনা করা হয়েছে।  আপনার কোন মতামত বা প্রশ্ন থাকলে তা নিচে জানাতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ক্যাপচাটি লিখুন * Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.