Latest Update

Paypal এর বিকল্প xoom এর মাধ‍্যমে বাইরের ক্লায়েন্ট থেকে খুব সহজে টাকা আনুন

Linux Host Lab Ads
Xoom Home Page
বাংলাদেশে পেপ‍্যাল নেই বলে ফ্রিল‍্যান্সাররা বাইরের ক্লায়েন্টের থেকে ডলার আনতে ভোগান্তিতে পড়ে থাকেন। অনেকেই ডলার রিসিভ করার জন‍্য মানিবুকারস, পেঅনার বা অন‍্যান‍্য মাধ‍্যম ব‍্যবহার করেন। গতবছরই শুনেছিলাম জুমের কথা। কিন্তু ব‍্যবহার করা হয়নি। গতমাসে ক্লায়েন্টকে জুম ট্রাই করে দেখতে বললাম। ব‍্যবহার করে দেখলাম খুব ইজি এবং খুব সহজেই টাকা আসছে সরাসরি ব‍্যাংকে।
নোট: দয়া করে এটাকে পেপ‍্যালের সরাসরি বিকল্প হিসেবে দেখবেন না। পেপ‍্যাল আর এইটার মধ‍্যে হাজারগুনে তফাৎ। এটা একরকম মানি এক্সপ্রেস, বা ওয়েস্টার্ণ ইউনিয়নের মত। সুবিধা হল ক্লায়েন্ট পেপ‍্যালের ডেবিট কার্ড ব‍্যবহার করে পেমেন্ট করতে পারবে।
এছাড়াও ক্লায়েন্ট তার ব‍্যাংক একাউন্ট, ক্রেডিট কার্ড ব‍্যবহার করেও আপনাকে পেমেন্ট দিতে পারবে। ডলারের রেট ভালো পাওয়া যায় এবং এটা খুবই কম খরচ। ১০০০ ডলারের উপরে ফ্রি এবং তার নিচে যে কোন এমাউন্ট পাঠাতে মাত্র ৪ ডলার খরচ হবে।
আসুন দেখি কিভাবে টাকা রিসিভ করবেনঃ
প্রথমেই আপনার ক্লায়েন্টকে xoom.com ঠিকানাটা দিয়ে জিজ্ঞেস করুন যে সে এটা ব‍্যবহার করে পেমেন্ট দিতে পারবে কিনা। তারপর সে পেমেন্ট দিতে চাইলে আপনার তথ‍্য তাকে দিতে হবে। আপনি আপনার রেফারেল লিংক দিতে পারেন এতে আপনি ২০ ডলার বোনাস পাবেন। রেফারেল লিংক জেনারেট করতে ওখানে রেজিস্ট্রেশন করুন।
আপনার যে তথ‍্যগুলো দিতে হবে:
১। আপনার পুর্ণাঙ্গ ঠিকানা। (নাম, গ্রাম, থানা, জেলা, দেশ)
২। আপনার ব‍্যাংক একাউন্ট ইনফো। (ব‍্যাংকের নাম, ব্রাঞ্চ, একাউন্ট নং) কোন কোন ব‍্যাংক সাপোর্ট করবে তা দেখে নিন: এখান থেকে
৩। আপনার মোবাইল নম্বর।
৪। আপনার ই-মেইল ঠিকানা।
আপনার থেকে এই তথ‍্যগুলো নিয়ে ক্লায়েন্ট পেমেন্ট পাঠিয়ে দিবে। পেমেন্ট পাঠানোর পর আপনি একটি আইডি ই-মেইলে পাবেন। এই আইডি দিয়ে আপনি আপনার পেমেন্ট ট্র‍্যাক করতে পারবেন। আইডির সাথে একটি লিংক আসে সেটাতে ক্লিক করলে আপনার টাকা কোথায় আছে তা দেখাবে।
মূলত পাঁচটি ধাপে টাকা প্রসেস হয়। ১। Xoom Processing Started ২। Payment Verified ৩। Transfer in Progress ৪। Deposit in Progress ৫। Deposit Update – Final
এই পাঁচ ধাপ প্রসেস হতে সময় লাগে মাত্র দুই দিন। অর্থাৎ ক্লায়েন্ট ডলার পাঠানোর দুই বা তিন দিনের মধ‍্যে আপনি আপনার ব‍্যাংকে টাকা পাবেন। ধাপ ২ অর্থাৎ পেমেন্ট প্রসেস হলে একটা মেইল পাবেন, টাকা ডিপোজিটের জন‍্য রেডি হলে আরেকটা মেইল পাবেন এবং ফাইনালি টাকা লোড হয়ে গেলে আরেকটা মেইল পাবেন। লোড হওয়ার পর টাকা আপনার ব‍্যাংক একাউন্টে আসার সময়টা নির্ভর করবে ব‍্যাংকের উপরে। আমি ডাচ বাংলা ব‍্যাংক ব‍্যবহার করে সময় লাগে ৪ ঘন্টা আর সরকারী ব‍্যাংকে সময় লাগে ৬-৮ ঘন্টার মত।
মেইলে যে লিংক পাবেন সেটা দিয়ে ট্র‍্যাক করতে পারবেন নিচের মত
Xoom
আশাকরি বুঝতে পেরেছেন। 😀
পোস্টটির মেইন লেখক রাসেল আহম্মেদ
লিংক: এখানে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ক্যাপচাটি লিখুন * Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.