Linux Host Lab Ads

ওয়ালটন প্রিমো এফ৮-এস (Primo F8s) হ্যান্ডস অন রিভিউ

Ads by পিসি হেল্প সেন্টার (বাংলাদেশ)

Linux Host Lab Ads

১৮ঃ৯ রেসিও ডিসপ্লে নিয়ে ওয়ালটন বাজারে নিয়ে এসেছে তাদের নতুন আর একটি বাজেট স্মার্টফোন প্রিমো এফ৮-এস;আর একে বলা যায় পূর্ববর্তী প্রিমো এফ ৮ এর সাক্সেসর । বরাবর এর মত এটিও ওয়ালটন এর একটি বাজেট রেঞ্জ স্মার্টফোন; আর এটি বাজারে পাওয়া যাবে মাত্র ৫১৯৯ টাকায়। স্মার্টফোনটির ৫.৪৫ ইঞ্চি বিশাল ডিসপ্লে এর সাথে এর একটি প্লাস পয়েন্ট ।  ১৮ঃ৯ রেসিও ডিসপ্লে এর সাথে এর আরেকটি আকর্ষণীয় দিক হল স্মার্টফোনটির অপারেটিং সিস্টেম যেটা হল অ্যান্ড্রয়েড অরিও [গো] ৮.১  অপারেটিং সিস্টেম।

এক নজরে প্রিমো এফ৮-এস স্মার্টফোনঃ

  • ৫.৪৫ ইঞ্চি ফুল ভিউ আইপিএস ডিসপ্লে
  • অ্যান্ড্রয়েড অরিও [গো] ৮.১  অপারেটিং সিস্টেম
  • ১.৩ গিগাহার্জ কোয়াড কোর ডিসপ্লে
  • ১ জিবি র‍্যাম, ৮ জিবি রম
  • ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সাথে এলইডি ফ্ল্যাশ
  •  ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা সাথে এলইডি ফ্ল্যাশ
  • ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর
  • ২২০০ এমএএইচ ব্যাটারি

ইউজার ইন্টারফেস

Ads by পিসি হেল্প সেন্টার (বাংলাদেশ)

Linux Host Lab Offer

ডিভাইসটিতে অ্যান্ড্রয়েড অরিও গো ভার্সন ব্যবহার করা হয়েছে। আর বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এখানে ইউজার ইন্টারফেসে ব্যবহারকারী পুরোপুরি অরিও গো ভার্সন  এর স্বাদ পাবেন।

অরিও গো ভার্সন টিকে তৈরি করা হয়েছে লোয়ার স্পেসিফিকেসন অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনগুলির জন্য; আর তাই এতে সকল কিছুই আপনি একটি  লাইট  অ্যান্ড্রয়েড ফিলিংস পাবেন ; আর বিল্ট ইন ইউটিউব গো, জিমেইল গো এর মত অ্যাপলিকেশন দেখতে পারবেন।

হার্ডওয়্যার

হার্ডওয়্যারের দিক দিয়ে ডিভাইসটি সাধারন। এতে MT6580 মিডিয়াটেক কোয়াডকোর সিপিইউ ব্যবহার করা হয়েছে। এটি একটি ৩২ বিট সিপিইউ।সিপিইউটির কোর সংখ্যা ৪ টি এবং ক্ষমতা ১৩০০ হার্জ। ডিভাইসটিতে দেয়া হয়েছে DDR3 ১ জিবি র‍্যাম  ; আর এখানে মোট ৯১৪ এমবি এর ভেতর হালকা কিছু অ্যাপলিকেশন ইনস্টল করলে প্রায় ৩২৬ এমবি বা এর কম-বেশি র‍্যাম  ফাকা থাকে।

গ্রাফিক্স প্রোসেসিং ইউনিট হিসেবে রয়েছে এআরএম এর মালি ৪০০ এমপি। ওয়ালটন এর ট্রিপিক্যাল সব বাজেট, মিডিয়াম বাজেট স্মার্টফোনে এই জিপিইউ এর দেখা পাওয়া যায়। ডিভাইসটির সার্বিক গ্রাফিক্স এবং দুই ক্যামেরা মডিউল নিয়ন্ত্রন করার জন্য এই জিপিইউ মোটামোটি। ক্যামেরা পরিচালনা করতে ল্যাগ দেখা যেতে পারে।

ক্যামেরা

ডিভাইসটির পিছনে/রিয়ার প্যানেলে রয়েছে 5 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। এই ক্যামেরায় সিঙ্গেল এলইডি ফ্ল্যাস এবং অটোফোকাস সুবিধা থাকছে। রিয়ার ক্যামেরার শুটিং মোড গুলো হলঃ প্যানারোমা, এইচডিআর, ফেস বিউটি এবং নরমাল মোড। ফ্রন্ট ক্যামেরার শুটিং মোড গুলো হলঃ এইচডিআর, ফেস বিউটি এবং নরমাল মোড। ক্যামেরার সেটিংস অপশনগুলো হল: এক্সপোসার কন্ট্রোল, হোয়াইট ব্যালেন্স, আইএসও ব্যালেন্স, ইমেজ প্রোপার্টিজ, কালার ইফেক্ট। ক্যামেরাটি ১৯২০*১০৮০ পিক্সেল রেজুলেশনে ভিডিও রেকর্ড করতে পারে।

ডিভাইসটির সামনে রয়েছে একটি ফ্রন্ট ফেসিং ৫ মেগাপিক্সেল BSI সেন্সরযুক্ত ক্যামেরা। সামনেও থাকছে একটি সফট এলইডি ফ্ল্যাশ। রয়েছে বেশ কিছু ক্যামেরা সেটিংস। আর শুটিং মোড হিসেবে রয়েছে ; নরমাল মোড, ফেস বিউটি, এইচডিআর, স্ক্রীন মোড। এটিও ১৯২০*১০৮০ পিক্সেল রেজুলেশনে ভিডিও রেকর্ড করতে পারে।

ডিসপ্লে ও বডি

ডিসপ্লে এর দিক দিয়েও এটি আগের প্রিমো এফ৮-এস এর মতই। এই ডিভাইসটিতে রয়েছে ৫.৪৫” ইঞ্চি এর এইচডি আইপিএস প্যানেল। আর এটিও একটি ১৮:৯ রেশিও এর ফুল ভিউ ডিসপ্লে।

গেমিং, মুভি ওয়াচিং এর ক্ষেত্রে এটি অবশ্যই প্লাস পয়েন্ট। এটি FWVGA+ ডিসপ্লে যার রেজুলেশন ৪৮০*৯৬০ পিক্সেল। ডিভাইসটি ৫ ফিংগার মাল্টিটাচ সাপোর্টেড। আইপিএস ডিসপ্লে হওয়ার কারনে নি:সন্দেহে ভিউইং অ্যাঙ্গেল নিয়ে কোন সমস্যা হওয়ার কথা না। একইভাবে ডিসপ্লেটি সাইড দিয়ে ২.৫ ডি কার্ভড হওয়ার কারনে স্মার্টফোনের ডিজাইনকে এটি বাড়িয়ে দিয়েছে কয়েকগুণে।

ডিভাইসটি লম্বায় ১৪৮.৮ মিলিমিটার, প্রস্থে ৭২ মিলিমিটার। ডিভাইসটির পুরুত্ব ৯.২ মিলিমিটার। ব্যাটারিসহ এই প্রিমো জিএম৩ ডিভাইসটির ওজন ১৭৬ গ্রাম। ডিভাইসটিকে ব্যাক আপ দিবে একটি ২২০০ এমএএইচ ব্যাটারি, ব্যাটারিটি নন রিমুভেবল।  ডিভাইসটির ব্যাকপার্টও রিমুভেবল। স্মার্টফোনটির ফ্রন্ট প্যানেলে নিচের দিকে পাওয়া যাবে একটি ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর।  ডিভাইস নীল, সোনালী এবং লাল রঙে বাজারে পাওয়া যাবে।

 

 

 

 

Ads by পিসি হেল্প সেন্টার (বাংলাদেশ)

Leave a Reply