Latest Update

এবার খুব সহজে আপনার পিসিতে ডাটা সেইভ করুন গুগল ক্রোমের মাধ্যমে। লিমিটেড নেট ইউজাররা অবশ্যই দেখবেন।

Linux Host Lab Ads

কেমন আছেন আপনারা সবাই, আশা করি অনেক ভালো আছেন। আজকের টিউনে আমি আপনাদের দেখাবো, কিভাবে ইন্টারনেট ডাটা’র ব্যবহার সঞ্চয় করবেন গুগল ক্রোম ব্রাউজার ব্যবহার করার মাধ্যমে।

আমাদের মধ্যে অনেকেই লিমিটেড বান্ডেলের ইন্টারনেট ব্যবহার করেন এবং অনেকক্ষেত্রে আমরা আনলিমিটেড ইন্টারনেট ব্যবহারকারী
হলেও বিভিন্ন জায়গায় ওয়াইফাই কানেকশন বা ব্রডব্যান্ড কানেকশন তো অবশ্যই কেউ পকেটে নিয়ে ঘুরতে পারবেন না। অথবা যেকোনো কোনো কারণে যদি আপনার আনলিমিটেড ইন্টারনেট ব্যবহার করার ডিভাইসটি আপনার সাথে না থাকে তখন আপনাদের পে-পার ইউজ পদ্ধতিতে নেট ব্যবহার
করতে হয় বা অনেকেই সব সময় মোবাইলে নেট ব্যবহার করেন না কিন্তু কোনো কারণ বশত মাঝেমধ্যে কোনো প্যাকেজ না কেনা ছাড়াই ব্যবহার করেন। আপনাদের হয়তো সবার জানা আছে যে পে-পার ইউসেজ পদ্ধতিতে অনেক বেশীই টাকা কাটে যেটা বান্ডেলের ক্ষেত্রে হয় না। যায় হোক অনেক অকাজের কথা বলে ফেললাম এখন আসি আসল কথায়। সুতারাং যেকোনো ক্ষেত্রে আপনি যদি চান কম ডাটা ব্যবহার করে আপনার সব কাজ সারতে তাহলে এই টিউনটি আপনার
জন্যেই নিচে আমি কয়েকটি সিম্পল স্টেপের মাধ্যমে দেখানোর চেষ্টা করবো কিভাবে আপনারা সেটা করতে পারেন। স্টেপঃ

১) আপনার অবশ্যই গুগল ক্রোম ব্রাউজার দরকার হবে, গুগল ক্রোম পিসি ছাড়াও ট্যাবলেট এবং এন্ড্রয়েড ফোনেও ব্যবহার করা যায় (যারা জানেন না তাদের জন্যে বললাম)

Linux Host Lab Offer

Data Server Screenshoot

২) এখান থেকে ফ্রি এক্সটেনশনটি ক্রোমে এড করে নিন ফ্রিতে গুগল ওয়েব স্টোর থেকে।

৩) এক্সটেনশনটি ইন্সটল করার পরে আপনি একটি নতুন আইকন দেখতে পাবেন ব্রাউজারের ডানপাশের উপরের দিকে, আইকনটিতে ক্লিক করে
প্লাগিনটি একটিভেইট করুন।

৪) প্লাগিনটি এক্টিভেইট করার পরে প্লাগিনটা অটোম্যাটিকালি তার কাজ শুরু করে দিবে মানে ডাটা সেইভিং এর কাজ শুরু করে দিবে, আপনি আইকনটিতে ক্লিক করে দেখতে পাবেন যে কত
পারসেন্ট ডাটা সেইভ করেছে প্লাগিনটি। আসলে সেইভ করেছে বলতে ব্যাপারটি হচ্ছে মনে করুন আমরা একটি ইমেজ লোড করলাম যার সাইজ ২৬০ কেবি কিন্তু এই প্লাগিনটি ইউজ করলে এই প্লাগিনটা সেই ইমেজের যে ডাটা আছে সেটাকে কম্প্রেস করে সেটার সাইজ সঙ্কোচিত করে ফেলবে যেমন মনে করুন ২৬০ কেবি থেকে ইমেজ ফাইলটির সাইজ রুপান্তর হবে ২৫০ কেবিতে, যার মানে হচ্ছে আপনার ১০ কেবি ইন্টারনেট সাশ্রয় হয়েছে। এই পদ্ধতিটি ব্যবহার করে সহজেই আপনি ডাটা’র সাশ্রয় করে সে ডাটা অন্য কাজে ব্যবহার করতে পারবেন। যেমন আমার ক্ষেত্রে দেখুন আমি ২.৬ জিবি নেট ব্যবহার করেছি কিন্তু এই এক্সটেনশটির কারণে নেট ব্যবহার হয়েছে ২.৩ জিবি।

সবচেয়ে ভালো বিষয়টি হচ্ছে এই এক্সটেনশনটি আপনার ব্রাউজিং এক্সপিরিয়েন্সে কোনো ঝামেলা
করবে না। শুধুমাত্র নেট ব্যবহারটাই সাশ্রয়ী করে দিবে। টিউনটি পড়ার জন্যে আপনাদের সবাইকে ধন্যবাদ,

আশা করি আপনাদের ভালো লেগেছে যদি ভালো লেগে থেকে টিউমেন্ট করুন এবং শেয়ার করে অন্যদেরও জানার সুযোগ করে দিন।

কোনো সমস্যা হলে বা কোনো ভুল দেখে থাকলে আমার অবশ্যই টিউমেন্ট করবেন।

টিউনটি ভাল লাগলে আমার সাইটঃ http://trickround.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ক্যাপচাটি লিখুন * Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.