Latest Update

ঈদ-উল-ফিতরের নামাজ, সুন্নত এবং মনকাড়া কিছু এসএমএস

Linux Host Lab Ads

কিভাবে ঈদ-উল-ফিতরের নামাজ পড়বেন ?

ঈদ মুবারক!

ঈদের নামাজ পড়িতে যাইয়া প্রায়ই বিব্রত হইতে হয় এর অতিরিক্ত ৬টি তাকবীর নিয়া। নীচে ঈদের নামাজের সংক্ষিপ্ত নিয়ম দেওয়া হইলো।

প্রথমে ঈদ-উল-ফিতরের নামাজের নিয়ত* করিয়া তাকবীর (আল্লাহু আকবর) বলিয়া তাহরিমা বাঁধিতে (বুকের নীচে) হইবে ইমামের সাথে সাথে। এরপর নীরবে সুবহানাকা ও তাসমিয়া পাঠ করিতে হইবে।

Linux Host Lab Offer

eid-ul-fitr

এরপর ইমাম তিনবার উচ্চঃস্বরে তাকবীর বলিবে। প্রত্যেকবার তাকবীর বলিবার সাথে সাথে কানের লতি পর্যন্ত হাত তুলিতে হইবে। প্রথম দুইবার হাত নীচে ছাড়িয়া দিতে হইবে আর তৃতীয়বার হাত বুকের নীচে বাঁধিতে হইবে। অতঃপর ইমাম উচ্চঃস্বরে সুরা ফাতিহা ও অন্য কোন সুরা বা আয়াত পাঠ করিবে। মুক্তাদিগন উহা শ্রবন করিবে। ইমামের পিছনে রুকু-সেজদা করিয়া দ্বিতীয় রাকাতে একই ভাবে সুরা ফাতিহা ও অন্য কোন সুরা বা আয়াত পাঠ করিতে হইবে। দ্বিতীয় রাকাতের শেষে রুকুতে যাওয়ার আগে ইমাম তিনবার তাকবীর পাঠ করিবে। তিনবারই হাত ছাড়িয়া দিতে হইবে, বুকে বাঁধা যাইবে না। চতুর্থ তাকবীরে রুকুতে যাইতে হইবে। এর পার সাধারন নামাজের মতোই ইমামের ইমামতিতে নামাজ শেষ করিতে হইবে।

নামাজ শেষে ইমাম খুতবা পাঠ করিবে ও সবশেষে মুনাজাত করিবে। জুম্মার নামাজের আগে খুতবা পাঠ করা হয়। কিন্তু ঈদের নামাজের শেষে খুতবা পাঠ করা হয়।

মুক্তাদীর জন্যে ঈদ-উল-ফিতরের নামাজের নিয়তঃ (বাংলায়)
ছয় তাকবীরের সহিত ঈদ-উল-ফিতরের নামাজের ওয়াজিব নামাজ কিবলামূখী হইয়া আদায় করার জন্যে ইমামের পিছনে দাড়াইয়া নিয়ত করিতেছি।

ঈদ উল ফিতর উনার সুন্নত সমূহ কি কি?

ঈদ উল ফিতর উনার সুন্নত হলো- (১) খুব ভোরে ঘুম থেকে উঠা, (২) গোসল করা, (৩) মিসওয়াক করা, (৪) সামর্থ অনুযায়ী নতুন ও পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন পোশাক পরিধান করা, (৫) আতর ব্যবহার করা, (৬) নামাযের পূর্বে ছদকাতুল ফিতর আদায় করা, (৭) ঈদুল ফিতর নামাযের পূর্বে কিছু মিষ্টান্ন খাওয়া (৮) তিন, পাঁচ বা বেজোড় সংখ্যক খেজুর বা খুরমা খাওয়া, (৯) মহল্লার (এলাকার) মসজিদে গিয়ে ফজরের নামায পড়া, (১০) ঈদগাহে হেঁটে যাওয়া, (১১) এক রাস্তা দিয়ে যাওয়া এবং অন্য রাস্তা দিয়ে ফিরে আসা, (১২) সকাল সকাল ঈদের নামায পড়ার জন্য যাওয়া, (১৩) ঈদের নামায ঈদগাহে গিয়ে পড়া। সম্ভব না হলে মহল্লার (এলাকার) মসজিদে গিয়ে ঈদের নামায পড়া, (১৪) আস্তে আস্তে নিম্নলিখিত দোয়া পড়তে পড়তে ঈদগাহে যাওয়া

الله اكبر الله اكبر لا اله الا الله والله اكبر الله اكبر ولله الحمد

(১৫) শরীয়তের সীমার মধ্যে থেকে খুশি প্রকাশ করা ইত্যাদি ঈদের সুন্নত। (আলমগীরী, নূরুল ঈজাহ ও অন্যান্য ফিক্বাহর কিতাব)

এখান থেকে নিয়ে নিন ঈদের ( Eid Ul Fitr 2019 ) কিছু ছবি ও এসএমএস

ঈদ মোবারক এসএমএস

1) আমার বাড়ি আইসো সখী নতুন সাজে সেজে, ঈদের পোশাক দিব তোমায় বইসো আমার পাশে। পোলাও কোরমার সাথে দিব 7আপ খেতে। ঈদের দিন করবো মাস্তী দুজন মোরা মিলে। ঈদ মোবারক।

2) ইচ্ছে করে বলতে তোমায় সত্যি ভালোবাসি, বলতাম ঠিকই থাকলে তুমি আমার পাশাপাশি। কোন দূরেতে আছিস বন্ধু আয়না আমার কাছে, আজকের দিনে তোকে আমার পরছে খুব মনে। ঈদ মোবারক।

3) নতুন পোশাক পরে নিও, বেশি করে ঈদি নিও। সেমাই খেও পেট ভরে ঘুরো ফের মন ভরে। ঈদ মোবারাক বলো প্রান খুলে।

4) দূরের মানুষ আসুক কাছে, কাছের জন থাকুক পাশে, মন ছুটে যাক তোমার টানে, নয়া চাদের আগমনে, কাটুক খুশি সবার মনে ¤¤ঈদ বোবারক ¤¤

5) হ্যালো প্রিয় এন্ড প্রিয়তম, আর মাত্র কয়েক দিন | আসছে সবার খুশির দিন ! নতুন জামা কিনে নিন, সময় নেই বেশি দিন| দাওয়াত রইল অগ্রিম, আসবেন কিন্তু ঈদের দিন, অপেক্ষায় থাকবো সারাদিন..”

6) যেদিন দেখব ঈদের চাঁদ, খুশি মনে কাটবে রাত। নতুন সাজে সাজব আজ, আজ হলো ঈদের দিন আনন্দে কাটবে সারাদিন। ঈদ বোবারক

7) ঈদ আসতে 1 দিন বাকি…..! এতো খুশি কোথায় রাখি……! বলাটা অনেক ইজি! ঈদের কাজে সবাই বিজি…! একটি বছর ঘুরে আসবে সেই দিন….! ঈদের খুশি বিলিয়ে দেওয়ার প্রস্তুতি নিন….! অনেকেই বিজি ঈদের কাজে….! আনান্দ টা সবার মাঝে…….!

8) চাঁদ উঠেছে ফুল ফুটেছে দেখবি কে কে আয়, নতুন চাঁদের আলো এসে পড়ল সবার গায় । ঈদ মোবারাক

9) ঈদের দাওয়াত তোমার তরে, আসবে তুমি আমার ঘরে। কবুল করো আমার দাওয়াত, না করলে পাবো আঘাত। তখন কিন্তু দেবো আড়ি, যাবো না আর তোমার বাড়ি। ঈদ মোবারক সবাই কে ঈদের অভিনন্দন

10) তোর ইচ্ছাগুলো উড়ে বেড়াক পাখনা দুটি মেলে, দিনগুলি তোর যাকনা কেটে এমনি হেসে খেলে। অপূর্ণ না থাকে যেন তোর কোন সুখ, এই কামনায় ঈদ মোবারক।

Visit My Site: www.Bangladesh Buzz.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ক্যাপচাটি লিখুন * Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.